শিরোনাম:
ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

Bhorer Bani
শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
প্রথম পাতা » নদ-নদী » সোনার ফসলের সম্পদ হবে জেগে উঠা চর কাঁকড়া
প্রথম পাতা » নদ-নদী » সোনার ফসলের সম্পদ হবে জেগে উঠা চর কাঁকড়া
৬৬২ বার পঠিত
শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

সোনার ফসলের সম্পদ হবে জেগে উঠা চর কাঁকড়া

আমজাদ হোসেন আমু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :
---
দেশের খাদ্য উৎপাদনে নদীর তলদেশ থেকে জেগে উঠা ভূমি গুলো হচ্ছে দারুন সম্ভাবনাময় সম্পদ। খাদ্য সংকটে চর গুলো হবে সমাধানে প্রদান হাতিয়ার।
ফসল উৎপাদনে খাদ্য সংকট সমাধানের সম্ভাবনায় স্বপ্ন দেখছে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মেঘনার বুকে জেগে উঠা চরে আদিবাসিন্দারা। তারা মেঘনার বুকে পূর্বপুরুষের ভেঙে যাওয়া ভূমির নতুনত্ব ফিরে পাওয়ায় খুশিতে আত্মহারা। রীতিমত ফসল উৎপাদনে বারবার গিয়ে বিভিন্ন ধরণের গাছগাছালি রোপনে সময় পার করছেন। সোনা ফসল উৎপাদনে চেষ্টায় মনঃস্থির করছেন।

জেগে উঠা নতুন চরের কূল কিনারা নেই। যতদুর চোখ যাচ্ছে ধু ধু কুয়াশাজড়ানো ভূমি চোখে পড়ছে। জেগে উঠা চর উপজেলার মুল ভূখণ্ড থেকে খুবই কাছে। যেতে নৌকা যোগে মাত্র কয়েক মিনিট সময় লাগে। আদি পুরুষের বসতি ও ফসলি জমি জেগে উঠেছে এমন আনন্দে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করছে দাবিদারগণ। চরটি জেগে উঠেছে উপজেলার চর লরেন্স, সাহেবের হাটের কিছু অংশ।

চরের পূর্ব নাম চর কাঁকড়া মৌজা হওয়ায় নতুন নামকরণ “ক্র্যাব আইল্যান্ড” রাখা হয়।
চরের ধরণ দেখতে পরিদর্শনে যান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাহ্ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুচিত্র রঞ্জন দাস, সহকারি কমিশনার (ভূমি) ফেরদৌস আরা, ওসি মুহাম্মদ সোলাইমান, ভাইস চেয়ারম্যান ওমর ফারুক সাগর, সাবেক চেয়ারম্যান আহসান উল্লাহ হিরণ, সাবেক সেনা সদস্য ও সমাজসেবক আব্দুর রহমান দিদার, কৃষি কর্মকর্তা মো. আবু ছায়েদ, চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, মোশাররফ হোসেন বাঘা, মৎস্য কর্মকর্তা মো.আব্দুল কুদ্দুসসহ প্রমুখ।

পরিদর্শন শেষে তারা ঝাউ গাছসহ কিছু বনজ গাছ রোপন করেন। সালাত আদায় করে দুপুরে খাওয়া-দাওয়া করে ফিরে আসেন।

জেগে উঠা নতুন চরটি উপজেলার চর লরেন্স নবীগঞ্জ ও সাহেবেরহাট এলাকা থেকে পশ্চিম দিকে খুবই কম দুরত্ব পথ। তবে ধু ধু মরুভূমির চরের কোন আয়তন এখনো জানা যায়নি। যেদিকে চোখ যাচ্ছে শুধু চোখেই পড়ছে। চরে জেগেছে সবুজের সমারোহ্। যতদুরচোখ যায় শুধু শুধু সবুজ আর সবুজ দৃশ্য। চরের মধ্যখানে আকাঁবাঁকা খাল রয়েছে। মাছ শিকারি পাখির দেখা মিলছে।

স্থানীয়দের মধ্যে জানা যায়, প্রায় ১২-১৫ বছর পূর্বে এখানে ঘনবসতি বাড়ি , স্কুল, মাদ্রাসা, মসজিদ ছিল। ধরুনে ধরুনে ফসলি জমিতে সোনালী ফসল উৎপাদন হতো। ফসলে ফসলে কৃষি জমি ভরপুর থাকতো। এখানে উৎপাদিত কৃষি পণ্য দেশে অন্য অঞ্চলের খাদ্য খাটতি পূরণ করতো। দুর-দুরান্ত থেকে ব্যাপারিরা কৃষি জমির ধান, ফসলি পণ্য কিনে নিয়ে রপ্তানি করতো। দুর্গম চর ও ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা মেঘনার ভাঙনে বিলীন হয়ে যায়। হাজার হাজার বসতি বাড়ি-ঘর ও ফসলি জমি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে অনত্র পাড়ি জমায় তারা।

এখন চর জেগেছে শুনে সবাই খুশি ও আনন্দ পাচ্ছে। অনেকে চর দেখতে ভিড় জমাচ্ছে। এযেন নতুন করে বাচাঁর স্বপ্ন বুনছে। চরে দৈর্ঘ্য বহুদুর। যার কারণে এখনো সীমানা নির্নয় করা যাচ্ছে না। তবে চর কাঁকড়া মৌজা এটা নির্নয় করা সম্ভব হয়েছে। নতুনভাবে নামকরণ করা হয় “ক্র্যাব আইল্যান্ড”। হইত এটা দিয়ে নতুনত্ব কিছু আশা যাচ্ছে।

খাদ্য উৎপাদনে নতুন চরকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। উপজেলার এক-তৃতীয়াংশ মেঘনার ভাঙনে বিলীন হয়েছে। যার কারণে ফসলি জমি অনেকটাই কমে গেছে। ফসল উৎপাদনে এচর হবে স্বপ্ন পূরণের সম্পদ। দেশে খাদ্য সংকট সমাধানে প্রতিটি খালি জমিকে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার। চরের দখল ও ফসল উৎপাদনে সাবেক বাসিন্দারা কাজ করছেন। তারা ফসল উৎপাদনের সকল কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। আস্তে আস্তে ফসল উৎপাদনে জমি চাষ শুরু করবেন। এ বছরে বৈশাখ মাস থেকে ধান উৎপাদন শুরু করতে পারেন।

আব্দুর রহমান দিদার বলেন, জেগে উঠা চরের মানুষের যাতায়াত বেড়েছে। প্রতিনিয়ত মানুষ চরকে ঘিরে স্বপ্ন দেখছে। কিভাবে চরকে বসতি ও ফসল উৎপাদনমুখি করা যায়। সেসব চিন্তা করছে। চরকে ফসল উৎপাদনমুখি করতে পারলে এখানে মানুষের যাতায়াত বাড়বে। এতে চরের আদিপত্য ও অপরাধ প্রবনতা রোধ হবে। সাধারণত চরে জলদস্যু ও অপরাদ প্রবনতা বৃদ্ধি পায়।

এছাড়াও চরের চারদিকে প্রবহমান নদী প্রবাহিত। জেলেরা মাছ শিকার করতে উদ্যোগি হবে। নদীর মাছ দেশের অন্যতম আয়ের উৎস। জেলেদের নিরাপত্তা রক্ষায় যাতায়াত করার মানুষ খুবই কাজে আসবে বলে মনে করছি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো.আবু ছায়েদ বলেন, নতুন চরে প্রথমে কোন ফসল উৎপাদন হয় না। পুরোপুরি চর জেগে উঠলে চরে বালি মাটি পলিতে পরিনত হয়। এসব জেগে উঠা চরগুলো হয় ফসল উৎপাদনে প্রদান সম্পদ।

উপজেলা চেয়ারম্যান মেজবাহ্ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পি বলেন, নদীর বুকের চর জাগলে। চরের মালিক হয় সরকার। নতুন চরের দখল ও রক্ষাবেক্ষণ প্রশাসন করবে। এখন উপজেলায় যাদের বাড়ি-ঘর ও ফসলি জমি নদী ভাঙনে বিলীন হয়েছে। তারাই এচরে যাতায়াত শুরু করেছে। সাধারণ চর কাঁকড়া, চরকালকিনি, চর লরেন্স মৌজার ভূমি গুলো নদী গর্ব থেকে জেগে উঠেছে। জেগে উঠা চরগুলোর সীমানা মোটামুটি প্রতিয়মান হচ্ছে। চরগুলো জেলার কমলনগর উপজেলার বিভিন্ন মৌজা সংবলিত। নদীর গর্বের জেগে উঠা চরের ফসল উৎপাদনে মাঠ তৈরি করতে হয়। চরের ফসল উৎপাদনে সম্ভাবনা শতভাগ সৃষ্টি হয়। কাঁকড়া চরের কোন কূল-কিনারা নেই। হাজার একর ভূমির দৃশ্যপট। এখানে ফসল উৎপাদন করলে দেশের খাদ্য সংকট সমাধানে ভূমিকা রাখবে।

তিনি আরও বলেন, প্রশাসনের সাথে আলাপ করে চরের দখল ও ফসল উৎপাদন করতে হবে। এব্যাপারে জেলা প্রশাসক(ডিসি)র সাথে সার্বক্ষণ যোগাযোগ স্থাপন করা হচ্ছে। কারণ চর দখল নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে রাহাজানি দেখা যাচ্ছে। জেগে উঠা চরের বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসন ও জেলা প্রশাসক(ডিসি)কে চিঠি দেয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুচিত্র রঞ্জন দাস বলেন, উপজেলার মেঘনা নদীর মধ্যখানে চর জেগেছে। স্থানীয়রা চিঠি দিলে চরটি দেখার ইচ্ছ ছিল। তাই দেখতে যাওয়া হয়েছে। বিশাল আকৃতির ভূমি যতটুকু দেখলাম কোন কিনারা পায়নি। সীমানা বহুদুর। সেখানে কিছু ঝাউ গাছ লাগিয়েছি। চরের ফসল উৎপাদনে ভালো ভূমিকা রাখতে পারে। খাদ্য সংকট সমাধানে চরে ফসল উৎপাদনে ভূমিকা রাখবে ব্যাপক। সাধারণত জেগে উঠা চরগুলোর মালিক সরকার। কৃষি বিভাগের সাথে কথা বলে ফসল উৎপাদন করা যাবে।



আর্কাইভ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ- কর্মসূচি পালনে বিপাকে ছাত্রলীগের সহ সভাপতি সানিম
কমলনগরে বহিরাগত যুবক দিয়ে অস্ত্রোপচার, স্বামী-সন্তান নিয়ে আড্ডায় মগ্ন ডা. ফাতেমাতুজ যাহরা
বাংলাদেশের মাটিতে কোনো ষড়যন্ত্র সফল হবে না-এমপি নজরুল ইসলাম বাবু
লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে নৌকার প্রার্থী জাসদের মোশারেফ
লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে দু’জনের মনোনয়ন বাতিল
কমলনগরে ডেঙ্গু জ্বর মানে-ই হঠাৎ আতংক
লক্ষ্মীপুরে তৃণমুলে আলোচনায় যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী ভুলু
কমলনগরে বিএনপি’র অফিস ভাঙচুর
কমলনগরে প্রধান শিক্ষকের উপর হামলা, বিচার চেয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ র্যালী
জামালপুরে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে আ’লীগে মতবিনিময় সভা
জামালপুরে যুবলীগের তারুণ্যর জয়যাত্রা সমাবেশের প্রস্তুতি সভা
সরিষাবাড়ীতে জনতার সাথে মতবিনিময় করেন প্রকৌশলী মাহবুব হেলাল
ঈদের শুভেচ্ছা জানান ভাইস চেয়ারম্যান শিলা
ঈদের শুভেচ্ছায় আ’লীগ নেতা সাজু
“ডেইলি ভোরের বাণী” পরিবারে ঈদুল আজহা’র শুভেচ্ছা