শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

Bhorer Bani
মঙ্গলবার, ১ মার্চ ২০২২
প্রথম পাতা » রাজনীতি | সারাদেশ » কমলনগরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নিবেদিত মোতালেব-ওয়াহেদ পরিবার
প্রথম পাতা » রাজনীতি | সারাদেশ » কমলনগরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নিবেদিত মোতালেব-ওয়াহেদ পরিবার
৬৪৬ বার পঠিত
মঙ্গলবার, ১ মার্চ ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কমলনগরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নিবেদিত মোতালেব-ওয়াহেদ পরিবার

---

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নিবেদিত ও নির্যাতিত পরিবার চর ফলকনের মরহুম আব্দুল মোতালেব ও আব্দুল ওয়াহেদ পরিবার। দীর্ঘ দু’যুগেরও বেশি সময় ধরে এ পরিবার আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নির্যাতিত ও নিপীড়িত। এই পরিবার আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে রাজপথে আন্দোলন -সংগ্রামে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন। সরকার বিরোধী আন্দোলন দমনে গিয়ে রাজপথে নির্যাতনসহ অর্থনৈতিক অসহায়ত্বের শিকার হন। সরকার বিরোধী নির্যাতনে তার পরিবারে মরহুম আব্দুল মোতালেব, মো.দিদার হোসেন আহাদ ও আব্দুল ওয়াহেদ হামলা-মামলার শিকার হন।

আব্দুল ওয়াহেদ জানান, তার বাবা ২০০১ সাল থেকে বৃহত্তর রামগতি উপজেলার চর ফলকন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, পরে কমলনগর উপজেলা একই ইউনিয়নের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বিএনপি-জামায়াত জোটের আন্দোলন-সংগ্রামের নির্যাতিত ও নিপীড়িত ছিলেন। তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে অর্থযোগান দাতা ছিলেন। সরকার বিরোধী আন্দোলনে হামলার কারণে ব্যবসা-বানিজ্য ক্ষয়ক্ষতি ও অর্থনৈতিক ভাবে ভেঙে পড়েন। এবং দীর্ঘদিন অসুস্থ থেকে ২০১৪ মৃত্যু বরণ করেন।

তিনি আক্ষেপ করে বলেন, তার বাবা মরহুম মোতালেব মিয়া আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে এতো অগ্রণি ভূমিকা পালন ও হামলা-মামলা, দলের দু:সময়ে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম, অর্থযোগান দেয়.। কিন্তু মৃত্যুর পর দল কোন স্মরণ সভা বা দলীয় ভাবে খোঁজ-খবর রাখেননি। এছাড়াও এই পরিবার থেকে তাদের দলীয় কোন পদ-পদবী বা দায়িত্বের রাখা হয়নি। যা সত্যি - এই পরিবারের প্রতি অন্যায় করা হয়েছে। তারপরও বঙ্গবন্ধুর আর্দশে দেশনেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন পালনে দল করছি। যতদিন বেঁচে থাকবো এই প্রিয় দলটি করে যাবো…ইনশাআল্লাহ।

তিনি আরও জানান, তিনি ২০০৩ সালে সরকার বিরোধী আন্দোলন করতে গিয়ে বিএনপির মামলায় কারা বরণ করেন। ২০০৭-০৮ সালে তত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে রাজপথে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন। প্রিয় দল আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে ২০১২-১৩ সালে বিএনপি-জামায়াত জোটের আগ্রাসী আন্দোলন দমন করতে রাজপথে মিছিল-মিটিং এ সংক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। হঠাৎ বিএনপি-জামায়াতের প্রকাশ্য তান্ডবে তাদের পারিবারিক ব্যবসা, নিজস্ব মালবাহী দুটি ট্রাকে আগুন, দোকান পাট ও বাড়ি-ঘর ভাঙচুরসহ কোটি টাকার অর্থনৈতিক ক্ষয়ক্ষতির সাধন হন। এছাড়াও সরকার বিরোধী মিছিলে প্রকাশ্য ভূমিকা পালনে রাজপথে ভয়াবহ নির্যাতন করেন বিএনপি-জামায়াত। তাকে প্রকাশ্য হত্যার চেষ্টায় মারধর করা হয়। তাদের প্রকাশ্য নির্যাতনে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান। যা ছিল তৎকালীন আওয়ামী রাজনীতির মূল আলোচনার কেন্দ্র।

তিনি আরও জানান, তার ছোট ভাই মো.দিদার হোসেন আহাদ ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক। তাকে রাজপথে সরকার দলীয় আন্দোলনে বাধাঁ দেয়ার কারণে রাতের আধারে তুলে নিয়ে দু’পায়ের রগগুলো কেঁটে দেয়। বিএনপি-জামায়াত ক্যাডারদের পাশবিক নির্যাতনে তার পরিবারের কেউ রক্ষা পায়নি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে লক্ষ্মীপুর জেলার নির্যাতিত পরিবার গুলোর মধ্যে অন্যতম মরহুম আব্দুল মোতালেব ও ওয়াহেদ পরিবার।

আব্দুল ওয়াহেদ, ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের হাজিরহাট মিল্লাত একাডেমী সভাপতি, সাবেক উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি উপজেলার চর ফলকন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি পদ প্রত্যাশী হিসেবে সবার দোয়া কামনা করেন।

ভী-বাণী / ডেস্ক



আর্কাইভ

লাইফ সাপোর্টে মারা গেল ছাত্রলীগ নেতা জীবন
কমলনগর কলেজে চুরি
কমলনগরে জোরপূর্বক জমি ও ঘর দখলে মাদ্রাসা পরিচালনার অভিযোগ
মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক হাসিব রসি
পারিবারিক কবরস্থানে শায়িত হলে আরিফ-জাকির
কমলনগরে কাভার্ডভ্যান চাপায় দুই যুবক নিহত
কমলনগরে বিএনপি’র বিক্ষোভ সমাবেশে মারধর, আহত ৭
কমলনগরে বিএনপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ
নষ্ট রাজনীতি ঠেকাতে জাতীয় সরকারের বিকল্প নেই-তানিয়া রব
ধর্ষণের অভিযোগে বান্দরবানে চৌকিদার অংক্যসিং মার্মা আটক
কর্মজীবন থেকে অবসর নিলেন সুপার মাও আ: লতিফ
জলোচ্ছ্বাসে উপকূলীয় পরিবারে খাদ্য বিতরণ
মেঘনার ভাঙন রোধে ঠিকাদারদের হ য ব র ল কান্ড
কমলনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের যত উন্নয়ন
কমলনগরে সরকারি সম্পত্তির সীমানা নির্ধারণে দাবি