শিরোনাম:
ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

Bhorer Bani
বুধবার, ৮ নভেম্বর ২০২৩
প্রথম পাতা » অপরাধ ও দুর্নীতি » স্কুল ফাঁকি দিয়ে রাজনীতিতে ব্যস্থ সরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক জিয়া
প্রথম পাতা » অপরাধ ও দুর্নীতি » স্কুল ফাঁকি দিয়ে রাজনীতিতে ব্যস্থ সরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক জিয়া
১০৫৯ বার পঠিত
বুধবার, ৮ নভেম্বর ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

স্কুল ফাঁকি দিয়ে রাজনীতিতে ব্যস্থ সরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক জিয়া

---

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে স্কুল ফাঁকি দিয়ে রাজনীতির মাঠে ব্যস্থ সময় পার করছে সরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো.জিয়াউল হক জিয়া। তিনি উপজেলার চর কাদিরা কেএম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি স্কুল চলাকালিন সময়ে স্কুলে না গিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক মিটিং এ অংশ নিচ্ছেন। তার স্কুলে না থাকায় শিক্ষার্থী বিপাকে পড়ছে।

বুধবার (৮নভেম্বর) সকালে উপজেলা হল রুমে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো.তাজুল ইসলাম এমপি’র অনুষ্ঠানে তাকে দেখা যায়। তিনি অনুষ্ঠানে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। এছাড়াও তিনি স্কুল ফাঁকি দিয়ে প্রায় সময় লক্ষ্মীপুর-৪(রামগতি-কমলনগর) আসনের সংসদ সদস্য মেজর (অব:) আব্দুল মান্নান এর রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকেন।

স্কুল সূত্রে জানা যায়, স্কুল প্রধান শিক্ষক মো.জিয়াউল হক জিয়া যখনই সংসদ সদস্যের দলীয় রাজনৈতিক অনুষ্ঠান থাকে তখনই স্কুল ফাঁকি দিয়ে প্রোগ্রামে উপস্থিত হন। তার রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে যোগদানে স্কুলের শিক্ষক সহ শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়ছেন। তার অনুপস্থিততে স্কুলের পাঠদানে সমস্যা দেখা দেয়।

স্কুলের ৬ জন শিক্ষকের মধ্যে ২জন মাতৃত্বকালীন ছুটিতে রয়েছে। প্রধান শিক্ষকসহ ৪জন শিক্ষক দিয়ে প্রায় ৩শত ১০ শিক্ষার্থীর ৫টি শ্রেণিকক্ষের পাঠদান হচ্ছে। প্রধান শিক্ষকের অনুপস্থিততে পাঠদানে ব্যাপক ক্ষতি সাধন হয়।

প্রধান শিক্ষক মো.জিয়াউল হক জিয়া বলেন, তিনি সংসদ সদস্যের দলীয় অনুষ্ঠানে প্রোগ্রাম সফল করতে গিয়েছেন। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নির্দেশে মন্ত্রীর প্রোগ্রামে উপস্থিত হন তিনি। তিনি স্কুল ফাঁকি দিচ্ছেন না। তিনি দলীয় কোন পদ-পদবীতে নেই।

উপজেলা শিক্ষক কমিটি সভাপতি মো. কামরুল ইসলাম বলেন, মাননীয় মন্ত্রীর অনুষ্ঠানে ১০জন প্রধান শিক্ষকের তালিকায় মো.জিয়াউল হক জিয়ার নাম ছিল না। তিনি কেন এসেছেন জানা নেই।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো.জহিরুল ইসলাম বলেন, মাননীয় মন্ত্রী মো.তাজুল ইসলাম এর প্রোগ্রামে ১০জন প্রধান শিক্ষকের দাওয়াত ছিল। সেখানে তার(জিয়া’র) দাওয়াত ছিল না। তবে প্রায় সময় তাকে দলীয় প্রোগ্রামে দেখা যায়। তার বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ভী-বাণী /ডেস্ক/আমু



আর্কাইভ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ- কর্মসূচি পালনে বিপাকে ছাত্রলীগের সহ সভাপতি সানিম
কমলনগরে বহিরাগত যুবক দিয়ে অস্ত্রোপচার, স্বামী-সন্তান নিয়ে আড্ডায় মগ্ন ডা. ফাতেমাতুজ যাহরা
বাংলাদেশের মাটিতে কোনো ষড়যন্ত্র সফল হবে না-এমপি নজরুল ইসলাম বাবু
লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে নৌকার প্রার্থী জাসদের মোশারেফ
লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে দু’জনের মনোনয়ন বাতিল
কমলনগরে ডেঙ্গু জ্বর মানে-ই হঠাৎ আতংক
লক্ষ্মীপুরে তৃণমুলে আলোচনায় যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী ভুলু
কমলনগরে বিএনপি’র অফিস ভাঙচুর
কমলনগরে প্রধান শিক্ষকের উপর হামলা, বিচার চেয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ র্যালী
জামালপুরে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে আ’লীগে মতবিনিময় সভা
জামালপুরে যুবলীগের তারুণ্যর জয়যাত্রা সমাবেশের প্রস্তুতি সভা
সরিষাবাড়ীতে জনতার সাথে মতবিনিময় করেন প্রকৌশলী মাহবুব হেলাল
ঈদের শুভেচ্ছা জানান ভাইস চেয়ারম্যান শিলা
ঈদের শুভেচ্ছায় আ’লীগ নেতা সাজু
“ডেইলি ভোরের বাণী” পরিবারে ঈদুল আজহা’র শুভেচ্ছা